যুক্তরাষ্ট্র ‘সন্ত্রাসবাদের পৃষ্ঠপোষক’ – ইরান

যুক্তরাষ্ট্রকে ‘সন্ত্রাসবাদের পৃষ্ঠপোষক’ দেশ হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে ইরান। একই সঙ্গে মার্কিন বাহিনী সেন্টকমকে (ইউনাইটেড স্টেটস সেন্ট্রাল কমান্ড) সন্ত্রাসী সংগঠনের তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। সোমবার ইরানের ‘এলিট ফোর্স’ হিসেবে পরিচিত রেভ্যুলেশনারি গার্ডকে (আইআরজিসি) বিদেশি সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে তালিকাভুক্ত করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

যুক্তরাষ্ট্রের ওই পদক্ষেপের পাল্টা জবাব দিতেই এমন পদক্ষেপ নিল ইরান। ইরানের সর্বোচ্চ জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদ (এসএনএসসি) জানিয়েছে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসিকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে ঘোষণা দেয়ায় এর পাল্টা পদক্ষেপ হিসেবে এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এক বিবৃতিতে এসএনএসসির পক্ষ থেকে ওয়াশিংটনের এমন পদক্ষেপকে অবৈধ এবং নির্বোধ কর্মকাণ্ড বলে উল্লেখ করা হয়েছে। একই সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রকে ‘সন্ত্রাসবাদের পৃষ্ঠপোষক’ দেশ হিসেবেও উল্লেখ করা হয়েছে।

এসএনএসসি এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র এবং এর মিত্র দেশগুলো সব সময় পশ্চিম এশিয়ায় চরমপন্থী ও সন্ত্রাসী সংগঠনগুলোকে সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানিকে মার্কিন বাহিনী সেন্টকমকে সন্ত্রাসী সংগঠনের তালিকাভুক্ত করার আহ্বান জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ জারিফ।

ইরানের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের এমন সিদ্ধান্তের মাধ্যমে প্রথমবারের মতো কোনো দেশ অন্য দেশের সামরিক বাহিনীকে আনুষ্ঠানিকভাবে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে আখ্যা দিল।

হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, ইরানের ইসলামিক রেভ্যুলেশনারি গার্ড কর্পস বা আইআরজিসি’র প্রাথমিক অর্থ হলো এর মাধমে দেশটির ‘বৈশ্বিক সন্ত্রাসবাদী ক্যাম্পেইনে’র বাস্তবায়ন করা।

share this news:
WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com