টানা ৫ম বারের মত ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন নেতানিয়াহু

ইসরায়েলের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর জোটই টানা ৫মবারের মত বসতে যাচ্ছে ইসরায়েলের ক্ষমতায়। যদিও ৯৭ শতাংশ ভোট গণনার পর নেতানিয়াহুর ডানপন্থী লিকুড পার্টি ও প্রতিদ্বন্দ্বী সাবেক সেনাপ্রধান মধ্যপন্থী বেনি গ্যানজের ব্লু এন্ড হোয়াইট পার্টি উভয়ই ৩৫টি আসনে জয় পেয়েছে। তবে, লিকুড পার্টি ও তাদের ডানপন্থী জোটসদস্যরা ৬৫টি আসন নিয়ে দেশটির ১২০ আসনের পার্লামেন্ট নেসেটের সবচেয়ে সংখ্যাগরিষ্ঠ জোটে পরিণত হয়েছে। এরফলে ইসরায়েলের ৭১ বছরের ইতিহাসে ৬৯ বছরের নেতানিয়াহুই সবচেয়ে বেশিদিন ক্ষমতায় থাকা প্রধানমন্ত্রীর রেকর্ড গড়তে চলেছেন।

উল্লেখ্য, ইসরায়েলের ইতিহাসে ১২০ আসন বিশিষ্ট পার্লামেন্ট নেসেটে এখনও পর্যন্ত কোনও দল একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি। সবসময়ই দেশটিতে জোটবদ্ধভাবে সরকার গঠন করে ক্ষমতা গ্রহণ করেছে। এর আগে ইসরায়েলের গণমাধ্যম ৪০ শতাংশ ভোট গণনার পর সরকারি ফলাফলের আভাস দিয়ে বলেছিলো, লিকুড পার্টি ৪০টি আসন পাবে এবং ব্লু এন্ড হোয়াইট পার্টি পাবে ৩৫টি আসন।

নেতানিয়াহু তেল আবিবে তার উচ্ছ্বসিত সমর্থকদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আমার নেতৃত্বেই ডানপন্থী সরকার গঠিত হতে চলেছে। আমি খুবই আপ্লুত। পঞ্চমবারেরমত ইসরায়েলের জনগণ আমার ওপর বিশ্বাস রেখেছে। এটি পূর্বের সকল নির্বাচনের তুলনায় আরও অনেকবেশি আস্থার পক্ষের রায় ছিলো। আমার উদ্দেশ্য ইসরায়েলের সকল জনগণের প্রধানমন্ত্রী হওয়া। ডান-বাম-ইহুদি,ইহুদি নয় সকলেরই প্রধানমন্ত্রী হবো আমি।’

উল্লেখ্য, নেতানিয়াহুর নামে ৩টি দুর্নীতির মামলা চলমান থাকলেও সেগুলোর একটিতেও তার বিরুদ্ধে আনা কোনও অভিযোগের পক্ষে প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

বুধবার ইসরায়েলের প্রধান তিনটি টেলিভিশন চ্যানেল জানায়, এই পর্যন্ত ৯৭ শতাংশ ভোট গণনা শেষ হয়েছে। একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা কোনও দলই অর্জন করতে পারেনি। তবে, অন্যান্য ডানদলগুলোর সমর্থন লাভের মধ্যদিয়ে একটি জোটবদ্ধ সরকার গঠনের দিকেই এগিয়ে চলেছেন নেতানিয়াহু।

ব্লু এন্ড হোয়াইট পার্টি প্রধান গ্যানজ বলেন, ‘আমি বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুকে জাতির প্রতি তার অবদানের জন্য ধন্যবাদ জানাই।’

share this news:
WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com