পহেলা বৈশাখে প্রেমিকের সঙ্গে ঘুরতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার কিশোরী

চট্টগ্রামে পহেলা বৈশাখে প্রেমিকের সঙ্গে ঘুরতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হয়েছে ১৫ বছর বয়সী এক কিশোরী। রোববার (১৪ এপ্রিল) দুপুরে পটিয়ার একটি আবাসিক হোটেলে নিয়ে ওই কিশোরীর প্রেমিক ও তার বন্ধু মিলে তাকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরী বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি রয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

জানা গেছে, ওই কিশোরী পটিয়ার একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করে। সেই সুবাদে একই কারখানার গাড়িচালক রিপনের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পহেলা বৈশাখে কারখানা ছুটি থাকায় দুজনে ঘুরতে বের হন। রিপন মেয়েটিকে কৌশলে একটি আবাসিক হোটেলে নিয়ে যান। সেখানে রিপনসহ তিনজন মিলে কিশোরীকে ধর্ষণ করে।

চমেক হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির নায়েক আমির হোসেন বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে একজন অটোরিকশা চালক মেয়েটিকে প্রথমে পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাকে চমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়। মেয়েটি অজ্ঞান অবস্থায় ছিল। তাকে কারা কীভাবে উদ্ধার করেছে তা জানা যায়নি।

এদিকে পটিয়া হাসপাতালের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. বাবলু দাশ জানান, ধারণা করা হচ্ছে, দুই থেকে তিনজন মিলে ওই কিশোরীকে ধর্ষণের ফলে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হয়। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় পটিয়া সরকারি মেডিকেল হাসপাতালে নিয়ে এলে অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে তাকে দ্রুত চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

share this news:
WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com