ব্রুনাই সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দারুসসালামের সুলতান হাজী হাসানাল বলকিয়ার আমন্ত্রণে ২১ এপ্রিল ৩ দিনের সরকারি সফরে ব্রুনাই যাবেন। প্রধানমন্ত্রীর সফর সংশ্লিষ্ট একজন কর্মকর্তা বলেন, এই সফরে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের পাশাপাশি ব্রুনাইয়ের ব্যবসায়ীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান জানানো হবে।

প্রায় ১৫ বছর আগে ২০০৪ সালে সর্বশেষ ঢাকা থেকে প্রধানমন্ত্রী পর্যায়ে দ্বিপক্ষীয় সফর হয় দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এই দেশটিতে।প্রধানমন্ত্রীর এই সফরে দুদেশের মধ্যে ৭টি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। সফরে বিনিয়োগ চাওয়ার পাশাপাশি রোহিঙ্গা ইস্যুতে ব্রুনাইয়ের সক্রিয় সমর্থন চাইবে বাংলাদেশ।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা বলেন, অনেক বছর পর ব্রুনাইয়ে প্রধানমন্ত্রী পর্যায়ের সফর হচ্ছে। তাই এই সফরটি ঢাকার জন্য খুবই তাৎপর্যপূর্ণ। সম্পর্ক শক্তিশালী করার পাশাপাশি এই সফরের মধ্য দিয়ে ঢাকা চাচ্ছে ব্রুনাইয়ের সঙ্গে সম্পর্কের নতুন মাত্রা যোগ করতে। যাতে রোহিঙ্গা ইস্যুতে ব্রুনাইয়ের সক্রিয় সমর্থন পাওয়া যায়।

কূটনৈতিক সূত্রগুলো বলছে, জ্বালানি, যুব ও ক্রীড়া, কৃষি, ভিসা (সরকারি কর্মকর্তাদের) সহজকরা, মৎস্য ও সংস্কৃতিসহ ছয়টি বিষয়ে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর হওয়ার বিষয়টি প্রায় চূড়ান্ত। এর বাইরে প্রাণিসম্পদ বিষয়েও একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর হতে পারে।

এই সফরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ব্রুনাইয়ের সুলতান হাসানাল বলকিয়ারকে দ্বিপক্ষীয় বিষয়ে একাধিক প্রস্তাব দিবেন বলে কূটনৈতিক সূত্রগুলো জানাচ্ছে।

বাংলাদেশ থেকে প্রশিক্ষিত চিকিৎসক এবং নার্স নেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হবে। পাশাপাশি সমুদ্র অর্থনীতি উন্নয়নেও দেশটির সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক গড়ার চেষ্টা করবে ঢাকা।

ব্রুনাই থেকে জ্বালানি খাতের গ্যাস বিষয়ে সহায়তা চাইবে ঢাকা। পাশাপাশি দুই দেশর বাণিজ্য এবং বিনিয়োগ বাড়াতেও প্রস্তাবনা থাকবে ঢাকার।

share this news:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *