তিন ফিফটিতে আয়ারল্যান্ডকে উড়িয়ে দিল বাংলাদেশ

ডাবলিনের ক্লনটার্ফে বাংলাদেশ পেয়েছে ৬ উইকেটের সহজ জয়। আইরিশদের ছুঁড়ে দেওয়া ২৯৩ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে টাইগাররা জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় ৪২ বল ও ৬ উইকেট হাতে রেখেই।

ফাইনাল আগেই নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় ম্যাচটি ছিল বাংলাদেশের জন্য নিয়ম রক্ষার খেলা। আর তাই একাদশে ছিল পরীক্ষা-নিরীক্ষার ছাপ। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ২৯২ রান সংগ্রহ করে স্বাগতিক দল।

ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ওয়ানডে খেলতে নামা আবু জায়েদ চৌধুরী রাহীর দারুণ বোলিংয়ের দিনে ব্যাট হাতে উজ্জ্বল ছিলেন আয়ারল্যান্ডের ওপেনার পল স্টার্লিং ও অধিনায়ক উইলিয়াম পোটারফিল্ড। ১৩০ রান করা স্টার্লিং শতক তুলে নিলেও ৬ রানের আক্ষেপ নিয়ে ৯৪ রান করে সাজঘরে ফিরেছেন পোটারফিল্ড।

বাংলাদেশের পক্ষে রাহী ৫টি, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ২টি ও রুবেল হোসেন ১টি উইকেট শিকার করেন।

জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে নিয়মিত ওপেনার তামিম ইকবালের সাথে দলকে ভালো শুরু এনে দেন সৌম্য সরকারের বদল একাদশে সুযোগ পাওয়া লিটন দাস। ১১৭ রানের মাথায় উদ্বোধনী জুটি ভাঙে ৫৩ বলে ৫৭ রান করা তামিম বিদায় নিলে। অর্ধ-শতক হাঁকিয়েছেন লিটনও। সাজঘরে ফেরার আগে ৬৭ বল মোকাবেলা করে করেছেন ৭৬ রান।

এদিনও ব্যাট হাতে উজ্জ্বল ছিলেন সাকিব আল হাসান। তবে ৫১ বলে ৫০ রান করা সাকিব অর্ধ-শতক সম্পন্ন করেই মাঠ ছাড়েন। যদিও তার এই মাঠ ছাড়া সাইড স্ট্রেইনের তথা চোটের শিকার হয়ে নাকি সহজ জয়ের ম্যাচে সতীর্থ ব্যাটসম্যানদের ব্যাটিংয়ের সুযোগ করে দিতে তা নিয়ে ম্যাচ শেষ হওয়া পর্যন্ত ছিল ধোঁয়াশা।

উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম ৩৫ ও মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ১৪ রান করে আউট হয়ে গেলেও দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (৩৫) ও সাব্বির রহমান (৭)।

উল্লেখ্য, আগামী ১৭ মে অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের ফাইনাল। আর কাঙ্ক্ষিত সেই ফাইনালে বাংলাদেশ লড়বে উইন্ডিজের বিপক্ষে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

আয়ারল্যান্ড ২৯২/৮ (৫০ ওভার)
স্টার্লিং ১৩০, পোটারফিল্ড ৯৪
রাহী ৫৮/৫, সাইফউদ্দিন ৪৩/২, রুবেল ৪১/১

বাংলাদেশ ২৯৪/৪ (৪৩ ওভার)
লিটন ৭৬, তামিম ৫৭, সাকিব ৫০*, রিয়াদ ৩৫*
র‍্যানকিন ৪৮/২, এডায়ার ৫২/১

ফল: বাংলাদেশ ৬ উইকেটে জয়ী।

share this news:
WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com