রেল প্রকল্পে দুর্নীতির আভিযোগে ৩ কর্মকর্তা বরখাস্ত

খুলনা-মোংলা নির্মাণাধীন রেললাইন প্রকল্পের ভূমি অধিগ্রহণে দুর্নীতির অভিযোগে ৩ কর্মকর্তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। বরখাস্ত আদেশের ঠিক এক মাস পর বৃহস্পতিবার রাতে এ বিষয়ে ভূমি মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব মো. মাকছুদুর রহমানের স্বাক্ষরিত একটি চিঠি স্থানীয় সাংবাদিকরা হাতে পান।

বরখাস্ত হওয়া তিনজনই বাগেরহাট জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের কর্মকর্তা। তারা হলেন- জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের এল এ শাখার অতিরিক্ত ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা নিত্য গোপাল ও কানুনগো সুব্রত সরদার এবং তৎকালীন সার্ভেয়ার বর্তমানে রামপাল উপজেলা ভূমি অফিসে কর্মরত সার্ভেয়ার কামাল হোসেন।

চিঠিতে বলা হয়, খুলনা-মোংলা নির্মাণাধীন রেললাইন প্রকল্পে ভূমি অধিগ্রহণে ওই ৩ কর্মকর্তা পরস্পর যোগসাজশে ভুয়া মালিক সাজিয়ে ক্ষতিপূরণ দিয়েছেন। ভূমি অধিগ্রহণের আওতাভুক্ত নয় এমন জমি অধিগ্রহণেরও ক্ষতিপূরণ দিয়েছেন। এছাড়া একই দাগের জমির মালিককে একাধিকবার ক্ষতিপূরণ দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। তাই সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা ২০১৮ এর বিধি-১২ অনুযায়ী এই ৩ কর্মকর্তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

তবে এ বিষয়ে বাগেরহাট জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের কোনও কর্মকর্তা এ বিষয়ে কথা বলতে রাজি হননি।

এদিকে, ২০১৫-১৬ অর্থবছরে খুলনা-মোংলা নির্মাণাধীন রেললাইন প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ৩ হাজার ৮০১ কোটি ৬১ লাখ টাকা। এর মধ্যে রেললাইনে ব্যয় হবে ১ হাজার ১৪৯ কোটি ৮৯ লাখ টাকা, ব্রিজের জন্য ১ হাজার ৭৬ কোটি ৪৫ লাখ টাকা ও জমি অধিগ্রহণে ১ হাজার ৮ কোটি টাকা।

share this news:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *