বিশ্বকাপে ক্যাচ মিসের তালিকায় শীর্ষে পাকিস্তান, সাতে বাংলাদেশ

ক্রিকেটের একটি কথা আছে, ক্যাচ মিস , ম্যাচ মিস। আর ২২ গজে ক্যাচ মিস খুব পরিচিত একটি দৃশ্য। অনেক সময় দেখা যায় ক্যাচ মিস করে জীবন পাওয়া ক্রিকেটারই ম্যাচ জিতিয়ে দেন। চলতি বিশ্বকাপেও এমন অনেক ক্যাচ মিসের মহড়া দেখা গেছে, যাদের মধ্যে সবার উপরে আছে সরফরাজ আহমেদের পাকিস্তান দল।

নিম্নে দেওয়া হলো ১০ দলের তালিকা-

এক (পাকিস্তান) 

বিশ্বকাপের আগে ও শুরু দিকে পাকিস্তান দলের অবস্থা খুব বেশি ভালো ছিলো না। একাধিক ক্রিকেটারের ফিটনেস নিয়েও উঠেছে প্রশ্ন। যার প্রভাব পড়েছে মাঠেও। চলতি বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত ১৪টি ক্যাচ মিস করেছে ক্যাচ মিসের তালিকায় শীর্ষে আছে পাকিস্তান।

দুই (ইংল্যান্ড)

স্বাগতিক হিসেবে দুর্দান্ত শুরু করেও ক্রমেই বিশ্বকাপে পিছিয়ে পড়ছে ইংল্যান্ড। এর প্রধান একটি কারণ হতে পারে মাঠে তাদের ক্যাচ মিস। এখনও পর্যন্ত মোট ১২টি ক্যাচ ফেলেছে ইংল্যান্ড। তারা আছে তালিকার দুইয়ে।

তিন (নিউজিল্যান্ড)

চলতি বিশ্বকাপে টানা ভালো খেলে যাচ্ছে নিউজিল্যান্ড। সাত ম্যাচ খেলে পাঁচটিতে জয় নিয়ে পয়েন্ট তালিকার দুইয়ে আছেন তারা। তবে ব্যাটে বলে পারফরম্যান্স ভালো হলেও ক্যাচ মিসে বেশ এগিয়ে কিউইরা। এখনও পর্যন্ত মোট ৯টি ক্যাচের সুযোগ নষ্ট করে তালিকায় তিন নম্বরে রয়েছে ব্ল্যাক ক্যাপসরা।

চার (দক্ষিণ আফ্রিকা)

চলতি বিশ্বকাপ মোটেই ভালো যায়নি দক্ষিণ আফ্রিকার। ব্যাটে বলে ফিল্ডিংয়ে কোনো দিক থেকেই বলার মতো কিছু করতে পারেনি। এরই মধ্যে সেমিফাইনালের দৌড় থেকেও ছিটকে গেছে দলটি। আর টানা ম্যাচ হারার পিছনে দায়ী সেই ক্যাচের সুযোগ নষ্ট করা। সর্বমোট ৮টি ক্যাচ হাতছাড়া করেছে রোডস-গিবসদের দেশ।

পাঁচ (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)

এক সময়ে বোলিংয়ের পাশাপাশি ফিল্ডিংয়ে জন্যও বাহবা পেতো ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলটি। কিন্তু সেই ফিল্ডিংয়েই তাদের এখন হতচ্ছাড়া অবস্থা। চলতি বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত ৬টি ক্যাচ হাতছাড়া করেছেন জেসন হোল্ডাররা। আছে তালিকার পাঁচে।

ছয় (অস্ট্রেলিয়া)

টুর্নামেন্টের প্রথম দল হিসাবে শেষ চারে পৌঁছে গেলেও ক্যাচ মিসে বেশ বেগ পেতে হয়েছে অস্ট্রেলিয়াকে। মোট ৪টি মূল্যবান কাচের সুযোগ হাতছাড়া করেছে স্মিথ-ওয়ার্নারের অস্ট্রেলিয়া।

সাত (বাংলাদেশ) 

চলতি বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত ৭ ম্যাচে তিন জয়ে পয়েন্ট টেবিলে বেশ কিছুটা এগিয়ে আছে বাংলাদেশ। ব্যাটে-বলে পারফরম্যান্সে ক্রিকেট বিশ্বকে চমকে দিয়েছে শাকিব, মুশফিকরা। তবে টাইগাররাও এই বিশ্বকাপে ৪টি ক্যাচ ফেলেছেন। আছেন তালিকার সাতে।

আট (শ্রীলঙ্কা)

বিশ্বকাপের শুরু থেকেই ধুঁকছে শ্রীলঙ্কা। সেমির আশা বাঁচিয়ে রাখা এক প্রকার অসম্ভব তাদের জন্য। এই দ্বীপরাষ্ট্রের ব্যাট-বলের ব্যর্থতার পাশাপাশি আছে ক্যাচ মিসও। চলতি বিশ্বকাপে মোট তিনটি ক্যাচ ফেলেছে তারা। এ ছাড়াও মিস ফিল্ডিংয়ে রানও দিয়েছে অনেক।

নয় (আফগানিস্তান)

এরই মধ্যে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গেলেও ফিল্ডিংয়ে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দেখিয়েছে দ্বিতীয়বার সুযোগ পাওয়া আফগানিস্তান। মাত্র ২টি ক্যাচ হাতছাড়া করেছে তারা।

দশ (ভারত)

চলতি বিশ্বকাপে একটি ম্যাচ পরিত্যক্ত হলেও বাকি চার ম্যাচে অপরাজিত আছে ভারত। এই সাফল্যের পেছনে ব্যাটে-বলে পারফরম্যান্সের পাশপাশি কাজ করেছে দলটির দুর্দান্ত ফিল্ডিং। এখনও পর্যন্ত কোহলির দল মাত্র একটি ক্যাচ ফেলেছে। ফিটনেসের চরম ফর্মে থাকা ভারতীয় দল ক্যাচ ধরার তালিকায় শীর্ষে রয়েছে।

share this news:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *