ঐতিহ্যবাহী পেয়ারার ভাসমান হাটে আমেরিকান রাষ্ট্রদূত

ঝালকাঠিতে ঐতিহ্যবাহী পেয়ারার বৃহত্তর ভাসমানহাট পরিদর্শন করেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত আমেরিকান রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় তিনি সদর উপজেলার ভীমরুলী গ্রামের খালে পেয়ারার ভাসমানহাটে এসে পৌঁছান। এসময় তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলী ও পুলিশ সুপার ফাতিহা ইয়াসমিন।

 রাষ্ট্রদূত ভীমরুলী গ্রামের খালের ভাসমান পেয়ারারহাটে নৌ-ভ্রমন করেন। পরে তিনি পেয়ারার ডিঙি নৌকায় চড়ে স্থানীয় পেয়ারা ও সবজি চাষিদের সঙ্গে মিশে যান। তিনি পেয়ারা চাষীদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন। ডিঙি নৌকায় চড়ে বৈঠা হাতে রাষ্ট্রদূত নৌকা চালানোর চেষ্টা করেন। খালের দুই তীরে শত শত মানুষ দাঁড়িতে থেকে তা উপভোগ করেন। ভাসমান পেয়ারারহাট পরিদর্শন শেষে মার্কিন রাষ্ট্রদূত সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। এসময় তিনি উচ্ছ্বাসিতভাবে পেয়ারার ভাসমানহাটের প্রশংসা করেন। এখানকার প্রকৃতিক সৌন্দর্যে বিমুহিত হয়ে আতিথিয়তারও প্রসংশা করেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত। রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে আমেরিকান অ্যাম্বাসির কর্মকর্তারা ছিলেন।

ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলী বলেন, ঝালকাঠি জেলার ব্রান্ডিং হচ্ছে পেয়ারা ও শীতলপাটি। আমাদের পেয়ারার বিশাল বাগান রয়েছে। এখানে একটি ফ্লটিং মার্কেট আছে। একটি খালের ভেতর শত শত ডিঙি নৌকায় পেয়ারা বিক্রি করছেন চাষীরা। মার্কিন রাষ্ট্রদূত দক্ষিাঞ্চল সফরে এসে আমাদের ভীমরুলী গ্রামে ভাসমান পেয়ারারহাট পরিদর্শনে আসেন। আমরা তাকে ভাসমানহাট ঘুরিয়ে দেখিয়েছি। তিনি এখানকার মানুষ ও পেয়ারার ভাসমানহাটের প্রশংসা করেন।

share this news:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *