রোহিঙ্গাদের হত্যার জন্য ঘুষ নিয়েছিলো মিয়ানমারের সেনাবাহিনী

রোহিঙ্গাদের হত্যা ও দেশ থেকে বিতাড়নে উৎসাহিত করতে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীকে বেশ কয়েকটি দেশি-বিদেশি কোম্পানি অন্তত এক কোটি ২০ লাখ মার্কিন ডলার ঘুষ দিয়েছিলো বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের একটি সংস্থা। বুধবার এ খবর জানিয়েছে মার্কিন সংবাদ মাধ্যম ভয়েস অব আমেরিকা।

সংবাদ মাধ্যমটি জানায়, সোমবার জেনেভায় মিয়ানমার বিষয়ক জাতিসংঘের স্বাধীন আন্তর্জাতিক সত্যানুসন্ধানী মিশন যে ১১১ পৃষ্ঠার প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে তাতে এ তথ্য উঠে এসেছে।

প্রতিবেদন বলা হয়েছে, রাখাইনে মিয়ানমার সেনাবাহিনী রোহিঙ্গাদের ওপর হত্যাযজ্ঞ চালানো এবং ওই দেশ থেকে বিতাড়নের পর ওইসব কোম্পানিগুলো রাখাইন রাজ্য পুনঃর্গঠনের কাজ পেয়েছে। তারা বুলডোজার দিয়ে রোহিঙ্গাদের বাড়িঘর ভেঙে ফেলার কাজ শুরু করেছে। এইসব কোম্পানিগুলো রাখাইন থেকে মিয়ানমারের এই সংখ্যালঘু মুসলিমদের নাম নিশানা মুছে ফেলতে তৎপর রয়েছে। তবে ওেইসব কোম্পানিগুলোর নাম প্রকাশ করেনি সংবাদ মাধ্যমটি।

প্রতিবেদনে এই প্রথমবারের মতো জাতিসংঘের এই সংস্থাটি মিয়ানমার সামরিক বাহিনী এবং এর সাথে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে সম্পৃক্ত এ সকল ব্যবসা-বাণিজ্য প্রতিষ্ঠান ও সংস্থাগুলোকে চিহ্নিত করে তাদের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

সূত্র: ভয়েস অব আমেরিকা

share this news:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *