ভিসি নাসির উদ্দিনকে প্রত্যাহারের সুপারিশ

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) উপাচার্য (ভিসি) খোন্দকার নাসির উদ্দিনকে প্রত্যাহারের সুপারিশ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)।

একই সঙ্গে তার বিরুদ্ধে তোলা বিভিন্ন অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে উল্লেখ করে ভিসির বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থার সুপারিশসহ মোট তিনটি সুপারিশ করা হয়েছে।

গত ২৩ সেপ্টেম্বর শিক্ষা মন্ত্রণালয় চিঠি পাওয়ার পরদিন ২৪ সেপ্টেম্বর ইউজিসির সদস্য অধ্যাপক ড. মো. আলমগীরকে আহ্বায়ক করে পাঁচ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

কমিটির অন্য চারজন হলেন- ইউজিসির সদস্য অধ্যাপক ড. দিল আফরোজা বেগম, সদস্য অধ্যাপক ড. সাজ্জাত হোসেন, পরিচালক (পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়) মো. কামাল হোসেন এবং আইন শাখার উপপরিচালক মৌলি আজাদ।

কমিটি দায়িত্ব পাওয়ার পর ২৫ সেপ্টেম্বর (বুধবার) বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় সরেজমিন পরিদর্শনে যান। পরিদর্শনে গিয়ে সেখানে দুদিন অবস্থান করেন এবং ২৭ সেপ্টেম্বর (শুক্রবার) ঢাকা ফিরে এসে ওই দিনই তদন্ত প্রতিবেদন তৈরি করে ইউজিসির কাছে জমা দেন। তদন্ত প্রতিবেদন আজই শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে।

তদন্ত প্রতিবেদনে ভিসি খোন্দকার নাসির উদ্দিনের বিরুদ্ধে তিনটি সুপারিশ করা হয়। সেগুলো হলো- ভিসি খোন্দকার নাসির উদ্দিনের বিরুদ্ধে যে সব অভিযোগ উঠেছে তার প্রমাণ হয়েছে, তিনি (ভিসি খোন্দকার নাসির উদ্দিন) বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালনায় যোগ্য নয়, তাই তাকে ভিসি পদ থেকে সরিয়ে দেয়া এবং তার বিরুদ্ধে আনা বিভিন্ন অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় সেসব বিষয়ে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ।

কমিটির সদস্য অধ্যাপক ড. দিল আফরোজা বেগম বলেন, আমরা দ্রুততার সাথে তদন্ত শেষ করেছি। যেহেতু ওই বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি অস্থিতিশীল পরিস্থিত তৈরি হয়েছে, শিক্ষার্থীরা নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে -এসব বিষয় বিবেচনা করে আমরা দ্রুততার সাথে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, আমাদের কাছে মনে হয়েছে বর্তমান ভিসি (খোন্দকার নাসির উদ্দিন) একজন দায়িত্বহীন, দুর্নীতিবাজ, অনিয়মকারী ও নৈতিকস্খলনজনিত অপরাধ করেছেন।

share this news:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *