আবরার হত্যা : মেহেদীর স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় বুয়েট ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান রবিন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

পাঁচ দিনের রিমান্ড শেষে সোমবার মেহেদী হাসান আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে সম্মত হন।

তাকে আদালতে হাজির করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) পরিদর্শক (নিরস্ত্র) মো. ওয়াহিদুজ্জামান। তিনি আসামির জবানবন্দি রেকর্ড করার আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মহানগর হাকিম তোফাজ্জল হোসেন মেহেদী হাসানের জবানবন্দি রেকর্ড করেন। পরে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

গত ৮ অক্টোবর মেহেদী হাসানের পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

আবরার হত্যা মামলায় গত বৃহস্পতিবার বুয়েট ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত উপ-সমাজসেবা সম্পাদক ইফতি মোশাররফ সকাল, শুক্রবার বহিষ্কৃত ক্রীড়া সম্পাদক মেফতাহুল ইসলাম জিয়ন, শনিবার বহিষ্কৃত তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অনিক সরকার এবং রোববার ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত সদস্য মুজাহিদুর রহমান আদালতে দোষ স্বীকার করে জবানবন্দি দেন।

গত ৬ অক্টোবর রাতে বুয়েটের শেরেবাংলা হলের দ্বিতীয় তলার সিঁড়ি থেকে অচেতন অবস্থায় আবরার ফাহাদকে উদ্ধার করা হয়। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় ১৯ জনকে আসামি করে সোমবার সন্ধ্যায় চকবাজার থানায় একটি হত্যা মামলা করেন আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ।

share this news:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *