নিখোঁজের ৩০ ঘণ্টা পর ভৈরব নদে ভেসে উঠলো ডুবুরির লাশ

যশোরের অভয়নগরে নিখোঁজের ৩০ ঘণ্টা পর ডুবুরি নাঈমের (২৬) মরদেহ ভৈরব নদে ভেসে উঠেছে। শনিবার (২৫ জুলাই) সন্ধ্যায় উপজেলার নওয়াপাড়া বাজারের তারানা ঘাট ও এলবি টাওয়ার সংলগ্ন একটি জাহাজের পাশ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

গত শুক্রবার দুপুরে তারানা ঘাট ও এলবি টাওয়ার সংলগ্ন ভৈরব নদীতে তলিয়ে যাওয়া একটি পিলার উঠাতে গিয়ে নিখোঁজ হন নাঈম। খুলনা জেলার রুপসা থানার মিল্কি দেয়াড়া গ্রামের রাজ্জাক শেখের ছেলে নাঈম খুলনা সালভেস নামক কোম্পানির রাজ্জাক ডুবুরি দলের একজন সদস্য ছিলেন।

নিহতের পরিবার জানায়, শুক্রবার দুপুরে নাঈম ভৈরব নদে নিখোঁজ হওয়ার পর খুলনা সদর ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল প্রায় ৬ ঘণ্টা অভিযান চালিয়ে রাত ৮টার সময় অভিযান শেষ করে। শনিবার সকালে পরিবারের পক্ষ থেকে দুটি ট্রলার নামিয়ে পুনরায় অভিযান শুরু করা হয়। দিনব্যাপী অভিযান শেষে সন্ধ্যায় ডুবে যাওয়া স্থান সংলগ্ন নোঙ্গর করা একটি জাহাজের পাশে লাশ ভেসে উঠে। পরে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে নওয়াপাড়া নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির এসআই আসাদুজ্জামান জানান, নাঈম নামে এক ডুবুরি নিখোঁজের ঘটনায় শুক্রবার একটি জিডি করা হয়। শনিবার সন্ধ্যায় ডুবে যাওয়া স্থানের একশ গজ পাশ থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়।

উল্লেখ্য, প্রায় ছয় মাস আগে তারানা ঘাটে জাহাজ বাঁধার একটি পিলার নদীর মধ্যে তলিয়ে যায়। জাহাজ চলাচলে সমস্যা হওয়ায় সেই পিলার উদ্ধার করতে খুলনার রাজ্জাক ডুবুরি দলকে ভাড়া করা হয়। শুক্রবার দুপুরে ওই দলের চারজন সদস্য পিলার উঠাতে নদীতে নামে। পরে তিনজন উঠে আসলেও তখন নাঈমের কোনো সন্ধান পাওয়া যায়না। পরে শনিবার তার মরদেহ ভেসে ওঠে।

share this news:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *